Archive for the ‘Uncategorized’ Category

Funding information

Tuesday, December 5th, 2017

Finding professors with funding:

It`s always hard to find professors who have open positions/ funding. Usually senior students of a particular university can easily clarify the funding situation of the intended university. There is another way to find professors who might have funding or open positions. Usually, All the assistant professors of any university might have funding or open positions in US universities. This is because, when an assistant professor is hired by the university; the “job” is still not permanent. The assistant professor needs to try to bring funding, publish papers and graduate MSc/ PhD students. In US, faculties are initially hired as assistant professor and this is the starting point to build their career. If the assistant professor is unable to bring funding, publish papers or graduate MSc/ PhD students; his job may not become permanent. this situation of an assistant professor is called “tenure track”. When a new professor (including assistant professors) is hired in an university, the professor (including assistant professors) are given “start-up” funding by the university to build his own research group and research lab. This is one kind of investment by the university. The university knows that, when the newly hired professor (including assistant professors) write research proposals to ask for money from the funding agency; the university will get paid back. Because, once a research proposal is accepted and the funding agency gives money to professors; the university will keep some percentage (%) of that funded grants. The professors spend the funded grants to hire students, research labs and publications.So, in order to find funding from professors, the students need to look for “active” researchers (professors). All the professors are not “active” in research. That`s why, all of them might not have funding. You can check professors` website or his recent publications to understand his lab situation. Usually, all the assistant professors and newly hired Prof/ Assoc professors might have funding to hire new students. You can check Prof/ Assoc/ Assist. Professors` biography(in the website) to get a clear idea on that.
Drawbacks in joining an Assistant Prof`s team:
Assistant professors always look to hire students, publish papers and try to get funding; as it is their initial stage of their career. Even, in order to make their jobs permanent, they need to graduate MSc/ PhD students, publish papers or try to get funding (as mentioned earlier). Assistant professors are usually in need to manage their “course” classes (in the univ), write research proposals (to get funding), build their own and “new” research labs; write research articles (publish papers), advise or graduate MSc/ PhD students. They need to work very hard and manage everything in order to keep their university “job” safe. So, in this work load; the hired students (MSc/ PhD) might be put in pressure. Sometimes, this situation can become a disaster for students (GA/ RA). But, if you can “cope up” with this pressure/ unwanted situation, you can secure your funding and degree till the end.
Another drawback is that; Assistant professors are newly hired faculty with “start-up” funding and they are new in their career. They will start building their own labs and begin everything from base level. In that case, they may not have good connections or reputations which can put you in struggle to find a job. Usually, the “giant” professors in US have pretty good connections, network and reputation. These “giant” professors name in the resume may create a very good impression in front of the employers. But, “funding” and “graduation” are always an issue for students (MSc/ PhD). So, you can keep these things in your knowledge. Best of luck to all. I hope, this information will help the prospective students to find professors with funded grants and secure funding (GA/ RA).
Best of luck..
Note: You can even check research expenditure/ budget of an university in order to understand the funding situation of the university. Some universities don`t have enough budget/ money to hire new faculties. These “poor” universities might not even be able to offer you good stipend/ GTA offers. I would suggest you to be careful from these “poor” universities. These “poor” universities might put you in trouble to get funding/ your minimum living expenses..
Look for “rich” universities with good “budget” and research expenditures. Usually, the big and higher ranked universities have good annual budget and research expenditures. In these “rich” universities, most of the faculties might have funding and continue top class researches. Even, the “rich” department of “rich” universities can offer you good payment/ fellowship/ stipends. So, it`s always better to study and think about the universities; you want to go/ pursue your higher education. Because, it`s one of the steps of your future career.

Content writer: Abu Farzan Mitul, (http://www.unm.edu/~amitul/)

Internship finding tips

Sunday, December 4th, 2016

Students looking for internship should attend career fairs of other neighboring schools as well to maximize their chances. For example, students at Lamar university can try for career fair of other Texas universities like Austin, TAMU etc.
Forward resumes to alumni of your university or ask your professor or other seniors in the department. Also talk to university career center. Start looking for internship right now – most positions get filled up by Fall/early Jan/Feb. And, Polish your LinkedIn profile/resume towards company/job requirements. Good luck.

Higher studies: Myths and Facts

Monday, August 29th, 2016

This is a short overview about some basic informations for higher studies for KUETIANS.

1. CGPA – Your CGPA is always important. Forget about that myth that someone with a low CGPA with a higher GRE score got into a good school. Yes, it happens, but it does not mean that it is a regular pattern. Sometimes professor don’t find students on time, or sometimes at the 11th hour they need student and therefore, they end up taking the students whoever are in their current poll.

2. GRE – To get into good school (top 50) you must have higher GRE score and there is no exception unless you are a topper from your department and you barely meet the minimum GRE requirements. All the good ranked schools have their cut off score for selecting candidates. If some school asking for 315, then it is 315. Especially for the top ranked school, their admission committee follow a very strict policy. So focus on achieving higher GRE score.

3. Can GRE compensate lower CGPA – yes, it can but it does not mean that you won’t study during the undergrad, and with a 320 GRE score you will seek fund from e.g. UTD. It’s not going to happen. But, you will find position in lower ranked or non-ranked universities. Keep in mind that those schools are small, they have limited budget and they have limited opening in every other year.

4. Does rank matters: ok let me ask you one question if you would get chance in BUET and KUET, would you choose KUET. The plain answer is no. If you are a hiring manager and you have two candidates from BUET and KUET (both are 100/100), would you choose the candidate from KUET instead of BUET. The plain answer is No (given that you are not KUETIANS/BUETIANS). So rank matters. A good ranked university has it’s own reputation in industry, academia, it has a very strong network of alumni, and most importantly the hiring managers from different companies, the recruiters from different staffing companies they follow the rank. They have their own rank list of the universities from where they would like to hire most. And, it’s a fact. Sajib (CSE-2k4) from Carnegie Mellon Universitiy got his job through direct on campus recruitment in Oracle (i guess) and now he is in microsoft. So you can see how his school helped him to get a job.

5. Think higher education as an investment: I guess at least 5-10% KUETIANS are so well off that they can ask any amount of money from their parents and spend for their higher education. If you are capable of doing that, maintain a good CGPA, take the money from your parents and go to top ranked school even if you don’t get fund. I have seen a lot of indian students, came to good school without fund , and after one semester almost all of them got funding. Big schools have always big budget, the professors have a lot of money too. So consider it as an investment.

And, who are from middle class, concentrate on maintaining a good CGPA,and aim higher to get a good GRE score. I have never seen a topper from BUET to go to UND, SDSU type schools. But sad but true, we have seen that our teachers, seniors, and juniors who have pretty good result ended up to low ranked school of which they do not deserve. I am not saying this to disrespect someone, but to tell you that you should aim for higher. A boy from AUST can end up to University of Central Florida, Gainsville; then i don’t see any legitimate reason for being ended up getting into so called US schools with a higher CGPA.

জার্মানি: স্বপ্ন যখন কড়া নাড়ে !

Friday, January 10th, 2014

*****************************

Niloy Rahman

M. Sc. in Energy Science & Technology

University of Ulm, Germany

*****************************

প্রকৌশলীদের জন্য তীর্থ স্থান বলা হয় জার্মানীকে! এই উপলব্ধি আরও ব্যাপকভাবে মাথা চাড়া দেয় যখন জব করতাম কাতারে, জার্মান প্রযুক্তি ছিল কাতার প্লান্টের যত্রতত্র ৷ খুব ছোটকাল থেকেই বাবার মুখে শুনতাম এদের প্রকৌশল আর প্রযুক্তিযজ্ঞ নিয়ে নানা কাহিনী , বিস্ময়ে শুনতাম বাবার সেই সব কথা ৷ কাতারে একসাথে জার্মান প্রকৌশলীদের হাতে হাত রেখে কাজ করার অন্যরকম সব অনুভূতিই আজ টেনে এনেছে আমাকে জার্মানীতে ৷

উচ্চ শিক্ষা নিয়ে আমার আগ্রহ ডানা মেলে যখন আমার প্রিয় বন্ধু লিমন ,লিটন ,রিয়াদ, মুনিম,দ্বীপ তাদের স্ব স্ব উচ্চ শিক্ষার ক্ষেত্রে এগিয়ে চলেছে ৷বন্ধুরা আমাকে প্রায় উৎসাহিত করতে থাকে উচ্চ শিক্ষার জন্য ! বেশ ভালো সিজিপিএ ধারি বেশ কিছু বন্ধু  যেমন তুলি,দেলওয়ার ইতিমধ্যে জার্মানী চলে গেছে ,আরও বেশি উৎসাহিত হতে থাকি ৷ দেশে চলে আসলাম ছুটি নিয়ে,প্রয়োজনীয় কাগজপত্র জোগাড় করলাম ,সেসময় ডীন স্যার ছিলেন প্রফেসর ডঃ আশরাফুল গনি ভূঁইয়া ৷ স্যারের কাছ থাইকা Recommendation letter এর জন্য এক সপ্তাহ ঘুরাঘুরি করার পর অবশেষে  সফল হইলাম ; ঐদিন স্যার আমাকে অনেক পরিতোষপূর্ণ কথা বলেছিলেন , আর অনেক উৎসাহিতও করেছিলেন উচ্চশিক্ষার সিদ্ধান্ত গ্রহণের জন্য ৷

ইদানীং দেখছি অনেক বাঙ্গালি আসছেন জার্মানিতে , আমার এই উল্ম শহরে সেই পরিক্রমায় এসেছেন বেশ কিছু  প্রিয় বাঙ্গালি মুখ ৷ এছাড়া  অনেক বিদেশি ছাত্ররা পড়াশুনা শেষ করার পর জার্মানিতে চাকরি নিয়েও আসছেন এবং তারা যে এখানে চাকরি পাচ্ছে, তার মূল কারণ হল, জার্মানিতে উচ্চশিক্ষার সঙ্গে সেই সব দেশের শিক্ষা ব্যবস্থার  সংযোগ ৷ কোলোনের জার্মান অর্থনীতি গবেষণা প্রতিষ্ঠান আইডাবলিউ-র একটি সাম্প্রতিক জরিপের ফলাফল থেকে দেখা যাচ্ছে যে, যে সব বিদেশি-বহিরাগত জার্মানিতে পড়াশোনা করেছেন, তাদের ভালো বেতনের চাকরি পাবার সম্ভাবনা অনেক বেশি ৷  “শিক্ষিত বিদেশি’-রা সাধারনত জার্মানিতে আসার আগেই জার্মান ল্যাঙ্গুয়েজ শিখে আসছেন এবং সাথে সাথে কিছু কাজের অভিজ্ঞতা অথবা ইনটার্ন করে আসছে্ন ৷ ইঞ্জিনিয়ারিং, গণিতশাস্ত্র ও বিজ্ঞানের অন্যান্য বিষয় – জার্মানির মাঝারি মাপের শিল্পসংস্থাগুলি এই সব বিষয়ে দক্ষ কর্মীদেরই খোঁজ করে থাকে ৷ জার্মানিতে দক্ষ কর্মীদের চাহিদা যে ভাবে বেড়ে চলেছে, তার তুলনায় কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়গুলি থেকে স্নাতকের সরবরাহ পর্যাপ্ত নয় ৷ এ ক্ষেত্রে যে সব বিদেশিরা এ দেশে পড়াশোনা সমাপ্ত করছেন, তারা একটা সমাধান হতে পারেন বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা ৷

পরিপাটি জীবন  যাপন , টিউশনি ফী না থাকা, আর উন্নততর শিক্ষাকার্যক্রমের জন্য জার্মানির কলেজ- ইউনিভার্সিটিগুলি বিদেশি ছাত্রদের কাছে খুবই আকর্ষণীয় ৷  জার্মানিতে যারা পড়াশুনা করেছেন, এমন বিদেশিদের ৮০ শতাংশের জার্মানিতে থাকতে ও বাস করতে কোনো আপত্তি নেই – বরং সেটাই তাদের কাম্য ৷ তাদের এক-তৃতীয়াংশ তিন বছর কিংবা তার বেশি সময়ের জন্য জার্মানিতে থেকে যাওয়ার কথা ভাবেন ৷ যার ফলশ্রুতি বাস্তবেও পরিলক্ষণ করা যাচ্ছে যে সব ‘শিক্ষিত বিদেশিরা’ জার্মান কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করেছেন, তাদের অর্ধেকেই এখানে থেকে যান ৷ এই সব বিদেশিদের স্থানীয় কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করার ফলে রাজ্যকে যে ব্যয় বহন করতে হচ্ছে, সে বিষয়ে রাজ্য সরকার উচ্চবাচ্য করে না ৷

এখন ধরেন আপনি আগ্রহী উচ্চশিক্ষার জন্য, আর উচ্চ শিক্ষার জন্য জার্মানিতে যেতে চান ,এটি নিঃসন্দেহে একটি প্রশংসনীয় উদ্যোগ । তবে এ উদ্যোগটিকে কার্যকর ও ফলপ্রুসূ করতে বাস্তবসম্মত ও নিখুঁত পরিকল্পনা কোনো বিকল্প নেই। জার্মানিতে উচ্চশিক্ষা গ্রহণের ইচ্ছা বাস্তবায়নের সম্ভাবনা দিনদিন বেড়েই চলেছে । যদি এই বিষয়টির কিছু পূর্বশর্ত এবং প্রতিবন্ধকতা সম্পর্কে আপনার স্বচ্ছ ধারণা থাকে ,তবে এ ধরনের সম্ভাবনা আপনার জন্য নিঃসন্দেহে সফলতা বয়ে আনবে। মনে রাখবেন, এটা একটি উদ্যোগ। যে কোন উদ্যোগের মতই এখানে জড়িত আছে আপনার বা আপনার পরিবারের কষ্টার্জিত অর্থ, আপনার মেধা ও মনন, দক্ষতা ও নিষ্ঠা এবং এ সম্পদগুলো আপনি ব্যবহার করেছেন এমন একটি ক্ষেত্রে যেখানে সম্ভাবনার পাশাপাশি কিছু প্রতিবন্ধকতাও বিদ্যমান। উদ্যোগটি সফল করার জন্য প্রথমেই প্রয়োজন কিছু পরিকল্পনা প্রণয়ন, নিজের সম্পর্কে পর্যালোচনা ও মূল্যায়ন, সর্বোপরি পরিকল্পনা বাস্তবায়নে সঠিক ও সময়োপযোগী পদক্ষেপ গ্রহণ। জার্মানিতে উচ্চশিক্ষার জন্য যেতে চাইলে প্রথমেই ভেবে দেখুন, কেন জার্মানিতে পড়তে যেতে চান? আপনি এ কোর্সটি জার্মানিতে সম্পন্ন করতে আগ্রহী তাহলে দেশে না করে জার্মানিতে করার ক্ষেত্রে কি কি সুবিধা ও অসুবিধার সম্মুখীন হতে হবে, এর ইতিবাচক-নেতিবাচক দিকগুলোই বা কী কী?
কেন জার্মানিতে পড়তে যাবেন?
১) আত্মসমৃদ্ধিঃ যারা জার্মানিতে লেখাপড়া করেন তারা বিচিত্র অভিজ্ঞতার কারণে বুদ্ধিমাত্রা ও মননশীলতার দিক থেকে অধিকতর সমৃদ্ধ হয়ে ওঠেন।

২) বিশ্ব সম্পর্কে নতুন দৃষ্টিভঙ্গিঃ জার্মানিতে অবস্থানের ফলে আন্তর্জাতিক, রাজনৈতিক এবং অর্থনৈতিক ইস্যুগুলো সম্পর্কে আপনার জ্ঞান-ভান্ডার অধিকতর সমৃদ্ধ হবে। জার্মানিতে বসবাস করতে গিয়ে জার্মান ভাষা শিখতে হবে। ফলে নতুন ভাষা শিক্ষা এবং এর গুরত্ব আপনি উপলব্ধি করবেন।

৩) পেশাগত দক্ষতা বৃদ্ধিঃ জার্মানিতে উচ্চশিক্ষা শুধুমাত্র শিক্ষা এবং ব্যক্তিত্বকেই সমৃদ্ধ করবেনা, আপনার পেশাগত দক্ষতা বৃদ্ধিতে সহায়তা করবে। বিশেষত ব্যবসা, আন্তর্জাতিক বিষয়াবলি এবং চাকরির ক্ষেত্রে আপনার পেশাগত দক্ষতা খুবই মূল্যবান ভূমিকা

সব শেষে বলতে চাই ; আরও যে বিষয়টি  লক্ষ্য রাখা উচিত ,তা হল সঠিক কোর্স নির্ধারণঃ পেশাগত উন্নতি ও লক্ষে পৌছানোর জন্য কি ধরণের পেশা আপনার জন্য উপযুক্ত তা খুঁজে বের করা যেমন গুরুত্বপূর্ণ তেমনি পেশাগত সফলতা বা আশা-আকাঙ্ক্ষার বাস্তবায়নে সেই পেশার সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ কোর্সে উচ্চশিক্ষা গ্রহণও কম তাৎপর্যপূর্ন নয়। তাই বর্তমান গ্লোবালাইজেশনের যুগে উচ্চশিক্ষার অনেক কোর্সের মধ্যে আপনাকে এমন একটি কোর্স বেছে নিতে হবে , যা আপনার ভবিষ্যৎ পেশাগত দক্ষতার পূর্ব প্রস্তুতি হিসাবে গণ্য হবে । তবে জার্মানিতে পাশাপাশি আমাদের দেশেও যথেষ্ট চাহিদা আছে এরকম কোন কোর্সই জার্মানিতে উচ্চশিক্ষার জন্য নির্বাচন করা শ্রেয়।

শুভকামনা রইল সবার জন্য

নিলয়

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র: উচ্চ শিক্ষা ও ভুল ধারনা

Sunday, December 29th, 2013

—————————————————–——

Jannatun Naher Tandra

Graduate Research Assistant

South Dakota State University, USA

———————————————————–

লিটন ভাই আমাকে বললেন তোমাকে তো একটা লেখা দিতে হবে । লেখার বিষয়টা হবে উচ্চ শিক্ষা । বেশ ঘাবড়ে গেলাম । উনি বললেন ; তুমি শুধু তোমার গল্পটা বল । আমাদের উদ্দেশ্য হবে উচ্চ শিক্ষা বিষয়ে সবার ভুল টা যেন ভেঙ্গে যায় । বিশেষ করে মেয়েরা; তারা যেন বুঝতে পারে , উচ্চ শিক্ষা মানেই শুধু স্বামীর হাত ধরে বিদেশ যাত্রা নয় ।

তাহলে গল্প টা শুরু করি, আমার জন্ম ও বেড়ে ওঠা বাংলাদেশের এক মফস্বল জেলা শহরে । সেই শহরের সবচেয়ে ভীতু আর ঘরকুনো মেয়ে ছিলাম আমি । তবে পদার্থ আর গণিত ভালবাসতাম বলে প্রকৌশলী হতে  চেয়েছিলাম আর চেয়েছিলাম বাংলাদেশের সবচেয়ে সেরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পড়তে । উচ্চ মাধ্যমিকে সেটা সম্ভব হলেও, বিশ্ববিদ্যালয় এ এসে খানিকটা  হোঁচট খেলাম । বিশ্ববিদ্যালয় এ ভর্তির পর দেখেছি যে যেখান থেকেই আসুক, সবাই দুটি দলে ভাগ হয়ে পড়ে । কেও লেখাপড়ায় অতিরিক্ত উৎসাহী, কেও প্রচণ্ড নিরুৎসাহী । আমি  দ্বিতীয়  দলে পড়লাম । প্রথম সেমিস্টার এর ফলাফল আমার নিরুৎসাহকে যেন আরো বাড়িয়ে দিল । স্কুলে কলেজে পদার্থ আর গণিতে কেও কখনও আমাকে হারাতে পারিনি, সেই আমি Economics এ   Backlog খেয়ে একটি ইতিহাস গড়লাম ।

আমার বন্ধুরা সব অসাধারণ ভাল ফলাফল করতে লাগলো । যতখানি ভালবাসা আমার শিক্ষকেরা আমার বন্ধুদেরকে দিয়েছিলেন , তার চেয়ে বেশি অবজ্ঞা আর তাচ্ছিল্য তারা আমাকে দিলেন । আমাদের ক্লাসে একটা মেয়ে ছিল , ওর আর আমার রোল ছিল পাশাপাশি । ওঁই মেয়েটি আমাকে অনেক বুঝিয়েছে , ও আমাকে বলত তোমাকে দেখার আগে আমি তোমার গল্প অনেক শুনেছি , সেই গল্প গুলো তো অন্যরকম ছিল , তুমি কি আবার আগের গল্পে ফিরে যেতে পার না । আমি যেতে পারিনি ; কোথায় যেন হারিয়ে গিয়েছিলাম । Third year এ উঠে আমি অসাধারণ একজন বন্ধু পেলাম, আমার রুমমেট। ঐ আপু পরবর্তীতে KUET  এর শিক্ষিকা হয়েছিলাম । উনি বললেন এই  রাখলাম GRE  এর বই , আজ থেকে তোমার প্রস্তুতি শুরু । এত খটমট লাগল শব্দ গুলো , আমার সোজা জবাব , আমার দ্বারা এসব হবে না । আপুর কথা আচ্ছা ঠিক আছে তুমি সময় নাও ,  CGPA টা ভাল করার চেষ্টা কর । Fourth year এ উঠে একটু  serious হলাম । আমার কৃতকর্মের জন্য আমার শিক্ষকদের  সবসময় ধারনা ছিল আমি  একা কিছু পারি না । জেদ করে একা একা Thesis করলাম ,  Class  এর কোন মেয়ে CCNA  করতে রাজী হল না । একাই CCNA করলাম । 4-2 তে বেশ ভাল একটা  ফল ও করলাম । আমি  1ST Class ও পেয়ে গেলাম । কোত্থেকে যেন  IT তে একটা জব ও হয়ে গেল । কিন্তু  GRE শব্দটা  ভীষণ খটকা দিতে লাগল , আমার দুলাভাইও GRE এর জন্য  Preparation নিচ্ছিলেন , সেই সাথে ঐ আপুও প্রায় বলতেন, কিরে শুরু কর । আমি আচমকা আড়াই মাস পর চাকরি ছেড়ে দিলাম । আমার আম্মু তো রেগে অস্থির । আমার আপুরা  Transfer হয়ে  Chittagong চলে গেল । ভয়ানক একটা দুঃসময় আসল জীবনে । আমার কাছে একটি পয়সা নেই । Living Expense জোগাড় করব কি করে । গোপনে গোপনে  tuition এর চেষ্টা করলাম , সফল হলাম না । আমার আব্বু আমাকে বললেন তুমি যা চাও তাই হবে,  যদি  তুমি সত্তিই  সেটা আমাকে দিতে  পারো । GRE, TOEFL  এর কোন Coaching আমি করিনি । লজ্জা লাগত এই টাকাটা চাইতে । আব্বুর কথা , সবাই দেখি  Coaching করে , তুমি কিছুই করনা , তোমার কী ধারনা তুমি নিজেই  যথেষ্ট । ভিতরে ভিতরে আমার গলা কাপলেও শক্ত হয়ে বললাম যথেষ্ট।  এইসময়ে সবচেয়ে বেশি কষ্ট আম্মুর কাছ থেকে পেয়েছি । একেবারে মেয়ে  ; তারপর অবিবাহিত , একা একা বিদেশ গমনের ইচ্ছা , হবে তো নাই , তারপরও এ ধরনের ইচ্ছা , ধৃষ্টতার একটা সীমা থাকা উচিৎ ।  যাই হোক  GRE ফলাফল বেশ ভালই হলো । সবাই বলল  Quant এ  ৮00/৮00 পেয়েছ, No  চিন্তা । কিন্তু আমি চিন্তিত হয়ে পড়লাম  Low CGPA এর কারনে । শুধু শুধু অর্থ বিনাশ হবে এই ভেবে মাত্র  দুইটি University   তে Apply  করলাম আর  BCS এর জন্য পড়তে লাগলাম , যদি না হয় এই ভয়ে  । BCS এর Preliminary তে টিকে গেলাম , এর মধ্যে একটি বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে আমার চাকরী ও হয়েছে । তারপর একদিন পাখি হয়ে স্বপ্নের সন্ধানে ঊড়াল দিলাম । আমার চেয়ে বেশী অবাক হল আমার সহপাঠীরা । ও তো কথায় বলে না , ও কী করে একা একা  বিদেশে থাকবে!

আমি পরবর্তীতে যতটুকু জেনেছি , আমার চেয়ে অনেক ভালো Profile এর ছেলেরা আমার University তে  Fund পাইনি । অনেকে Admission ও পাইনি । এর একটা উল্লেখযোগ্য কারন  Research এ মেয়েদেরকে  অনেকসময়  কিছুটা সুবিধা দেওয়া হয় । আমার এই কথার উদ্দেশ্য নিজেকে দুর্বল প্রমাণ করা না । আমি জানি আমি দুর্বল নই । যতোখানি দুর্বলতা রয়ে গেছে তার জন্য আমার আলস্যই একমাত্র দায়ী ।আমরা  মেয়েরা দুর্বল হলে নাফিসা আপু এ Intel  জব পেতেন না , ফারহা আপু আজ USA University  এর  Faculty হতে পারতেন না ।  আরও অনেকে আছেন যাদের কথা জানিও না ।

শুধু আমাদের ভুল ধারনাই আমাদেরকে দুর্বল করে রেখেছে ।  KUET এ থাকতে আমি  জানতাম  Programming এমন একটা বিষয় , যেটা ছেলেরা Solve  করবে  আর মেয়েরা copy, paste করে জমা দিবে । এখন আমি এখানে অনেকের চেয়ে ভালো Programming পারি । নিজের প্রশংসা আরেকটু করি । আমাদের  Course Project এ  Additional একটা   Part ছিল । আমিই  class এর একমাত্র ব্যক্তি যে এটা  solve করতে পেরেছিল । আশা রাখছি খুব তাড়াতাড়ি একটা  paper বের করব  এর উপর।

আমার এই দীর্ঘ গল্পের উদ্দেশ্য আমরা যারা শূন্যে পড়ে আছি , আমরা যেন বুঝি , আমাদের একটু খানি চেষ্টাই জীবনটা ধন্য করে দিতে পারে ।  আর আমরা তোমাদেরকে খুব  Miss করি এখানে । আসো  উচ্চ শিক্ষা এর ক্ষেত্রে  BUET, KUET Ratio টা  1:1 করে ফেলি ।  উচ্চ শিক্ষা বিষয়ে যে কারো কাছে জানতে পারো । রায়হান ভাই, লিটন ভাই , রিয়াদ ভাই  যে কারো কাছে ।

আমি অনুরোধ করব কেও যদি  জানেন , যেমন কিছু বিষয়ঃ

1) At which time the GRE preparation should be started and the materials for GRE?

2) How to select Universities?

3) How to email professors?

4) How to write SOP?

5) About the living expenses of USA?

6) How to manage financially, In case of partial fund or without fund?

7) The total amount of money need to spend in case of full fund.

8) How people can bring his spouse and what are the things he should follow and the expenses for that?

আমি এগুলো খোঁজার Try  করেছি , কেন জানি পেলাম না ।এক জায়গায় থাকলে সবার সুবিধা হয় । এই  বিষয়গুলা   KUET Higher Study  তে  Upload করা যেতে পারে । আমরা সবসময় চেষ্টা করি  সবার সব প্রশ্নের উত্তর দিতে । সময়ের অভাবে অতো বিস্তারিত বলা সম্ভব হয়  না । ছেলেমেয়েরা কষ্ট পায় , ভুল বোঝে , মন খারাপ করে আগ্রহ হারিয়ে ফেলে ।

আগ্রহ হারিও না তোমরা ।  ধৈর্য  রাখো । USA তোমাদেরকে welcome করার জন্য  সাগ্রহে wait করছে।

যে  খেতে চাই বড় মাছের বড় একটা মাথা ,

জেনে রেখো সেই পায় বেশী কাঁটার ব্যথা ।

তন্দ্রা

KUET এর প্রাক্তন শিক্ষার্থী, যুক্তরাষ্ট্র থেকে

US Universities with good job placement

Monday, November 18th, 2013

This list might be helpful for you if you are considering getting a job after MS.

http://online.wsj.com/news/articles/SB10001424052748704554104575435563989873060

http://online.wsj.com/news/articles/SB10001424052748703369704575462023026245534

One thing to keep in mind is that it is not a bad idea to apply at a few top 20-30 ranking schools(or even better) even if you are worried about your chance of getting admission. Normally, getting admission in MS at top 20-50 schools is not that hard as it feels. Worst case you will not get funding initially, but in case you get admission you will get summer internship and full time job easily because of good campus recruitment process. Good internships pays around $4000 – $6000 a month. Also after a semester or two almost always students get some sort of funding on campus in a bigger school. It’s better to pay a semester out of pocket initially in a bigger school than going to smaller school with little funding and then struggle a lot to find a job. You can save money at your current work, or take out some loans and can pay off this loan very easily after you get a good job after your MS. Normally good jobs after MS, pay $70,000 – $100,000 in the US which will allow you to pay the loan only in a couple of months. So, paying for your tuition is not always a bad thing if you get into a good university knowing that your chance of getting job is higher after graduation. It’s an investment, and best kind of investment is the investment on ourselves.

-Raihan
Portland, USA

Selecting Universities for Higher Studies – Pick a better university over better funding?

Monday, November 18th, 2013

These days many KUET alumni are coming to USA for higher studies. One major step everyone has to do is to select universities to apply. This is a tough decision and time consuming process. Spending good amount of time to make informed decision to pick right universities is very important for our future career.

Due to great access to internet and easy reach to seniors, I believe everyone knows the following basic steps. I am just listing them as a refresher.

1. Get a list of universities(possibly with some ranking) from internet e.g. US News.
2. Go over each of these universities’ particular department website (and faculty websites) that you are interested in. Make a short list of say 15-20 schools based on their GRE/TOEFL/GPA cut off threshold, and department/faculty strength on the research area that you are interested in.
3. Now you can start emailing to professors and graduate students(including KUET alumni) of these departments to know more about their programs e.g. funding situation, current research activities/publishing rate of research groups, current need of graduate students, etc.
4. Based on the responses you get and your internet research, you can now make informed decision to short list 8-10 universities. Rule of thumb – 2 ambitious 4 moderate(50-50 chance) 2 safe schools

I am assuming most of you already know the process I listed above.What upsets me sometimes when I see many KUET students, even with very high profile, pick lower ranked universities just for the sake of getting some sort of funding or better funding. This is the primary topic of this writing – Pick a better university over better funding chances? I would like to remind my fellow KUETians about some future consequences of picking up wrong universities for wrong reasons e.g. better funding amount and would like to suggest the following to keep in mind during university selection phase. These may help you in the long run.

- If you want a research/teaching job after PhD(can be a direct PhD right after undergrad or a MS then PhD), you need to know this – it’s almost always the case that companies or universities will hire top grads from top/good schools for teaching/research jobs. Many times PhD grads from low ranking universities end up getting many years of low paid post-doc research job at universities before actually getting a real full time research/faculty position in community college or small university where research opportunities and career advancement is limited or eventually get a regular engineering job which can be obtained with a MS/BS degree only. As you may guess, top universities has more research funding, bigger research groups and your chance of publishing and doing good research is higher which will help land a research job. You will have more faculties in your interested research area. Also, in case you find out after going to your department that you do not like the research of your research adviser, you can switch to a different faculty adviser but still do research you like.

-If you are applying for MS only, your chances are higher of getting admission in top/mid ranked universities is higher(possibly with no/little funding). It is even worth paying a semester on your own at a great/good university than getting some funding at unknown universities because it would be way easier to get an internship/full time job afterwards. With a good summer internship you can easily cover close to one year of tuition if you save wisely. Also, almost everyone manages funding of some sort in a bigger/top school because there are plenty of on campus jobs as well as RA/TA in other departments. If your priority is to get a job right after MS, you MUST pick universities where many companies come at career/job fair to recruit. You can find this out by looking at the career center website of the university you are considering. You should also target universities which are near to companies you dream to get a job in. Sometimes medium/low ranked universities have excellent recruiting/hiring rate due to proximity of the universities.

-Always aim higher. Do NOT be afraid to take the risk of applying a few top universities and more good universities than picking safe bets. At most you are going to lose little bit of money for the application fee but please also try to visualize the bright side. If you get in, you career path of success would be a great one. It would be much easier to get into a research career or launch a great job in a great company.

Bottom-line is that you should apply to good universities even if you do not hear from faculties, and feel you may not get funding initially in a good school. You will never know until you apply. To increase your chances, you can apply more good universities. Happy school hunting. Wishing everyone all the best.

-Raihan
Portland, USA

Student guide for research publications

Sunday, February 17th, 2013

Prof. Bernstein’s Student Guide

  • Getting Published [PDF]
  • Writing Advice [PDF]
  • Writing a Paper [PDF]
  • Giving a Presentation [PDF]
  • On Review Practice [PDF]
  • A Students Guide to Precision Writing [PDF]
~Mottaleb Hossain
Graduate Student, University of New Mexico, USA
http://www.unm.edu/~mottaleb77